মেনু নির্বাচন করুন

টার্কি পালন

্টার্কি পালন একটি উদীয়মান বিষয়। বেকারত্ব দূরীকরণ, আয়বর্ধন, মনোরঞ্জন এবং অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হওয়ার জন্য এটি একটি উপযোগী খাত। ছবিটি নেয়া হয়েছে রাসিব এর টার্কির খামার, পশ্চিম পিয়ারাপুর, গাইবান্ধা হতে। এটি রাসিব এর টার্কির খামার, পশ্চিম পিয়ারাপুর, গাইবান্ধা। তার খামারে এখন ৪৫ টি টার্কি মুরগী আছে। 

জনপ্রিয়তার কারনঃ

১। টার্কির মাংস সুস্বাদু এবং মাংস উৎপাদন ক্ষমতাও ব্যাপক ।
২। এটা ঝামেলাহীন ভাবে দেশী মুরগীর মত পালন করা যায় ।
৩। টার্কি পাখি ব্রয়লার মুরগীর চেয়ে দ্রুত বাড়ে ।
৪। টার্কি পালনে তুলনামূলক খরচ অনেক কম, কারণ এরা দানাদার খাদ্যের পাশাপাশি শাক, ঘাস,লতাপাতা খেতেও পছন্দ করে ।
৫। টার্কির মাংসে প্রোটিনের পরিমাণ বেশি, চর্বি কম । তাই গরু কিংবা খাসীর মাংসের বিকল্প হতে এ পাখির মাংস।
৬। টার্কির মাংসে অধিক পরিমাণ জিংক, লৌহ, পটাশিয়াম, বি৬ ও ফসফরাস থাকে । এ উপাদানগুলো মানব শরীরের জন্য ভীষণ উপকারী। এবং নিয়মিত এই মাংস খেলে কোলেস্টেরল কমে যায় ।
৭। টার্কির মাংসে এমাইনো এসিড ও ট্রিপটোফেন অধিক পরিমাণে থাকায় এর মাংস খেলে শরীওে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় ।
৮। টার্কির মাংসে ভিটামিন ই অধিক পরিমাণে থাকে ।
৯। টার্কি দেখতে সুন্দর, তাই বাড়ির সোভা বর্ধন করে ।


Share with :

Facebook Twitter